মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরা পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ

মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষা‌ এবার হচ্ছে না। তার বদলে অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়নের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদেরকে পরবর্তী ক্লাসে তোলা হবে। চলতি শিক্ষাবর্ষে ৩০ দিনে শেষ করা সম্ভব এমন একটি সিলেবাস শেষ করতে হবে শিক্ষার্থীদের। বুধবার শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এক ভার্চুয়াল প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান।

অষ্টম শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণিতে ওঠার কথা যেসব শিক্ষার্থীদের, অর্থাৎ যাদের জেএসসি বা জেডিসি পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল, তাদেরকে গ্রেডিং ছাড়াই সনদ দেওয়া হবে। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের বার্ষিক পরীক্ষা না নিয়ে অর্জিত শিখন ফল মূল্যায়নের মাধ্যমে পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ ঘোষণা করা হবে।

মূল্যায়ন যেটা করা হচ্ছে তাতেও যেন শিক্ষার্থীদের অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি না হয়, তা মনে করিয়ে দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, কোনো পরীক্ষা নয়। বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না জানিয়ে তিনি বলেন, ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ঘাটতি পূরণের জন্য ৩০ কর্মদিবসে শেষ করা যায় এমন একটি সিলেবাস এনসিটিবি প্রণয়ন করেছে যা শিগগিরই প্রকাশ করা হবে। ওই সিলেবাসের আলোকে শিক্ষার্থীদের প্রতি সপ্তাহে একটি করে অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হবে। অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়ন করে শিক্ষার্থীর ঘাটতি চিহ্নিত করে পরবর্তী ক্লাসে তা পূরণ করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন দীপু মনি। তিনি বলেছেন, কোনো গ্রেডিং হবে না, সবাই পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ হবে।

করোনা মহামারী ঠেকাতে ১৭ মার্চ থেকে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়। বর্তমানে কওমি মাদ্রাসা ছাড়া অন্য সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত ছুটি রয়েছে।

আপনার মতামত জানান

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন