জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেশকে ফেরাতে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ প্রধান ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। আসন্ন আরও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে খেলার আগে জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে এই টুর্নামেন্ট নিউ নর্মালের সঙ্গে টাইগারদের মানিয়ে নিয়ে সাহায্য করবে বলে আয়োজকদের আশা।

ঢাকার একটি হোটেলে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্লেয়ার্স ড্রাফট শেষে বৃহস্পতিবার বিসিবি মিডিয়া ও কমিউনিকেশন কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস এ টুর্নামেন্টকে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের ফলো-আপ টুর্নামেন্ট হিসেবে উল্লেখ করেন। দেশে ঘরোয়া খেলা আয়োজনকে গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, এমনটি করা হচ্ছে যেন দেশিয় ভেন্যুগুলোতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা যায়। বাংলাদেশে জৈব সুরক্ষা বলয় পরিবেশ নিশ্চিত করা হচ্ছে কি না, বিদেশি দলগুলোকে জানতে চায়, জানিয়ে তিনি বলেন, এ টুর্নামেন্ট ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজনে সহায়ক হবে।

টুর্নামেন্টের পাঁচটি দলই ভারসাম্যপূর্ণ হওয়ায় আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপ উত্তেজনাপূর্ণ হবে বলে মনে করছেন জালাল ইউনুস। তিনি বলেন, টুর্নামেন্টটি উত্তেজনাপূর্ণ হবে। প্রতিটি দলই অভিজ্ঞ ও তরুণ খেলোয়াড়দের সংমিশ্রনে গঠিত বলে জানান তিনি।

পাঁচটি দল ও ৮০ জন ক্রিকেটারসহ ১৫০ জনকে নিয়ে জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ অনুষ্ঠিত হবে। জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে এত সংখ্যক মানুষকে পরিচালনা করা কঠিন হবে বলে মনে করলেও বিসিবি আশা প্রকাশ করছে যে, টুর্নামেন্টটি সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারলে বাকী বিশ্বকে একটি বার্তা দেয়া যাবে। উল্লেখ্য, ৭০জন মানুষকে নিয়ে জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে অক্টোবর মাসে সফলভাবে সীমিত ওভারের বিসিবি প্রেসিডেন্টস সম্পন্ন করেছে বিসিবি।

 

আপনার মতামত জানান

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন