শনিবার শ্যামা পূজা

হিন্দু সম্প্রদায়ের শ্রী শ্রী শ্যামা পূজা শনিবার। কার্তিক মাসের অমাবস্যা তিথিতে সাধারণত শ্যামা পুজা বা কালীপূজা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। করোনাভাইরাস মহামারীর দুর্যোগের মাঝেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবার এ পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

হিন্দু ধর্মে কালী দেবীকে দুর্গা দেবীরই একটি শক্তি বলে মানা হয়। ভক্তদের কাছে শ্যামা, আদ্য মা, তারা মা, চামুন্ডি, ভদ্রকালী, দেবী মহামায়াসহ বিভিন্ন নামে পরিচিত কালী দেবীর পূজা হচ্ছে শক্তির পূজা, জগতের সকল অশুভ শক্তিকে পরাজিত করে শুভশক্তির বিজয়।

কালীপূজায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীগণ সন্ধ্যাবেলায় তাদের বাড়িতে ও শ্মশানে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে মৃত মা-বাবা ও আত্মীয়-স্বজনদের স্মরণ করেন। তাই দিনটি দীপাবলী নামেও পরিচিত। দুর্গাপূজার মতো কালীপূজাতেও গৃহে বা মন্ডপে মৃন্ময়ী প্রতিমা অথবা প্রতিষ্ঠিত প্রস্তরময়ী বা ধাতুপ্রতিমাতে কালীপূজা করা হয়। কালী শ্মশানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী বলে বিশ্বাস। এ কারণে বিভিন্ন অঞ্চলে শ্মশানে মহাসমারহে শ্মশানকালী পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

রামকৃষ্ণ মঠ, ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির, রমনা মন্দির, সিদ্ধেশ্বরী কালী মন্দির, সবুজবাগ থানাধীন শ্রী শ্রী বরদেশ্বরী কালীমাতা মন্দির, পুরান ঢাকার রাধাগোবিন্দ জিঁউ ঠাকুর মন্দির, তাঁতী বাজার, শাখারী বাজার, পোস্তগোলা মহাশ্মশান, বাংলা বাজারসহ বিভিন্ন মন্ডপ ও মন্দিরে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শ্যামা পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

আপনার মতামত জানান

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন